Heart touching love story

Heart touching love story

,,,,,, Heart touching love story,,,,,

অসাধারণ একটি ভালবাসার গল্প ।
ভালোবাসা এমন ও হয় ,

একটি ছেলে ও মেয়ের ভালোবাসার গল্প ,

ছেলে – বাইরে বৃষ্টি হচ্ছে,,,!!!
মেয়ে- হুমম,,,
ছেলে- তোমার বৃষ্টিতে ভিঝতে ভালো লাগে,,,??
মেয়ে- হুমম,,,তোমার,,,,?
ছেলে- না,,,,আমার বৃষ্টি হলে ভয় করে,,
মেয়ে- কেন,,,???
ছেলে- আাকাশে বিদ্যুৎ চমকাই তাই,,,,😜😜😜
মেয়ে -ভিতুরাম কোথাকার,,
ছেলে- ওই ভিতুরাম বলবা না
মেয়ে- একশো বার বলবো,,, ভিতুরাম,,,ভিতুরাম,,,,
ছেলে- ওকে তোমার যা ইচ্ছা বল,,,,আমি গেলাম,,,,( অভিমান করে)
মেয়ে- ওই কোথায় যাচ্ছ,,,,???
ছেলে- চলে যাচ্ছি,,,
মেয়ে- ওলে বাবা আমার ভিতুরামটার আবার রাগ ও হয় দেখছি,,,,
ছেলে- হুমম,,
মেয়ে- আচ্ছা আর বলবো না,,,,
ছেলে – ওকে,,,
মেয়ে – চল বৃষ্টিতে ভিজি
ছেলে – না,,,,

ছেলেটা তাকিয়ে দেখে মেয়েটার মুখখানা মলিন হয়ে আাছে,,,

 

 httpsfastivel.onlineHeart touching love story

ছেলে- কি হয়ছে তোমার,,,??
মেয়ে – কই,,,,আমার কিছু হয় নাই,,,,,
ছেলে- তাহলে এমন করে বসে আছ কেন,,,,???
মেয়ে- কেমন করে বসে আছি,,??
ছেলে- তোমার মিস্টি হাসি টা তো দেখছি না,???
মেয়ে- হি,হি,হি,আমি তো হাচ্ছি,,,

হাসিটা ছেলেকে খুশি করার জন্য ছিল,,,,তা ছেলেটা বুঝতে পেরে,,,বলল,,

ছেলে – চল বৃষ্টিতে ভিঝি,,,
মেয়ে- সত্যি,,,,!!!
ছেলে – হুমম,,,
মেয়ে- তোমার তো ভয় করে তাই না,,
ছেলে- হুমম,,তো কি হয়ছে,,,??,তুমি আছ না আমার সাথে,,

বলে মেয়েটা হাত ধরে নিয়ে তারা বৃষ্টিতে ভিজতে লাগলো,,,,, হঠাৎ মেঘের

গর্জন শুনে ছেলেটা মেয়েটাকে জড়িয়ে ধরে,,,,,তারা কিছুক্ষণ এমন ভাবে থাকলো,,,,তার পর ছেলেটা ছেড়ে দিয়ে বলল,,,,,

ছেলে- দুঃখিত,,
মেয়ে – না,,,, কোনো সমস্যা নেই,,,,,আমার ভালো লাগছিল,,,

বলে এবার মেয়েটা ছেলেটাকে জড়িয়ে ধরে,,, কিছুক্ষণ পর মেয়েটি বলল,,,

মেয়ে – তুমি সারা জীবন এভাবে থাকবে আমার পাশে,,,
ছেলে- হুমমম,,,,থাকবো,,,,যতদিন আমার এ দেহে প্রান থাকবে,,,,
মেয়ে- কখনও এই হাত ছাড়বে না তো
ছেলে- আমি তোমার হাত ধরছি ছাড়ার জন্য,,,,নই,, সারা জীবন ধরে রাখারর জন্য,,
মেয়ে- I love you বলবো
ছেলে -না,,,বল,, I will love you,,,

এভাবে তাদের ভালবাসার দিনগুলি কাটতে থাকে,,,,ছেলেটি ভেবেছিল যে তার ভালবাসার

মানুষটির সাথে লাইফের বাকি জীবন টা কাটিয়ে দিবে,,,, কিন্তু সেটা আর সম্ভব হল না,,,,ছেলেটার

ক্যানসার ধরা পরে,,,,তখন ছেলেটা মেয়েটাকে এভোয়েড করতে থাকে,,,,

মেয়েটার সাথে তেমন কথা বলে না,,,,যখনি কথা বলে তখনি ঝগড়া করতে থাকে,,,, একদিন ছেলেটা বলে,,

ছেলে- আামর ব্রেকআপ চাই
মেয়ে – কেন,,,??
ছেলে – জানি না,,,
মেয়ে- আমি জানি,, বলবো,,,,??
ছেলে- হুমম,,,,
মেয়ে- তুমি অন্য কাউকে পেয়ে গেছো,,,,
ছেলে – হুমম,,,,তোমার থেকে অনেক ভালো,,,,(বলতে গিয়ে,চোখের কণে পানি চলে আসলো)

মেয়ে- আমি তোমার সুখের জন্য সব কিছু করতে পারি,,,,, আমি আর তোমার লাইফে আসবো না,,,
( কান্না কণ্ঠে)
ছেলে- তুমি চাইলেও আমি তোমাকে আর আসতে দিবনা,,,( কান্না কণ্ঠে)

মেয়ে – আমার কাছে তোমাকে একদিন ফিরে আসতে হবে,,,,

ছেলে- এটা অসম্ভব,,,,

মেয়ে- আমি তোমার জন্য অপেক্ষা করতে লাগব,,,যখন তুমি বুঝতে পারবে আমার মত

তোমাকে আর কেউ ভালবাসতে পারে না,,,,তখন তুৃমি আমার কাছে ফিরে আসবে,,,

ছেলে- এটা অসম্ভব,,, আমি আর কখনও তোমার লাইফে আসবো না,,,,তাই আমার জন্য অপেক্ষা করে কোনো লাভ নাই,,,,

মেয়েটি আর কিছু না বলে কাঁদতে কাঁদতে চলে গেল,,,,সেদিন ছেলেটি মেয়েটির চেয়ে বেশি

কেঁদেছিল,,,,কিন্তু সেটা লুকিয়ে,,,কিছুদিন পর ছেলেটি মারা যায়,, ছেলেটা ভেবেছিল মেয়েটিকে

ক্যানসারের কথা বললে হয়তো মেনে নিতে পারবে না,,,তাই সে তার কাছ থেকে ব্রেকআপ চায়,,,,,যাতে মেয়েটি সুখি থাকতে পারে,,,,

হ্যাঁ মেয়েটা আজ অনেক সুখে আছে,,,, মেয়েটি জানে না ছেলেটি কেমন আছে,,,,কোথায় আছে,,,কি করছে,,,,???
আর হয়তো জানার চেষ্টা করবে না,,কখনও,,,

কারন মেয়েটি ছেলেটির চলে যাওয়াকে মেনে নিতে পারিনাই,,,তাই তার স্থান হয়,,,মেন্টাল হসপিটালে,,,,সত্যি মেয়েটি এখন অনেক সুখে আছে,,,,, তাই না,,,বন্ধুরা,,,,

,,,,বেঁচে থাকুক ভালবাসা,,,,

#

,,, আপনাদের মন্তব্য ছাড়া গল্প মূল্যহীন,,,,

,,,,,,ভুল হলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন,,,,
,,,
গল্প পড়তে ভালোবাসলে রিকুয়েস্ট দিন ধন্যবাদ,,,,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *